রাত ১:২২, মঙ্গলবার, ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সারা মাসের রুটি বানিয়ে ফেলুন একদিনেই

আজকের সারাদেশ রিপোর্ট:

কর্মব্যস্ত জীবনে চাইলেই দুটো রুটি বানিয়ে খাওয়ার সময় নাও পেতে পারেন। অনেকে ডায়াবেটিস, ডায়েটসহ নানা জটিলার কারণে রুটির দিকে ঝুঁকেন। অনেকের আবার হালকা খাবার হিসেবে তেল ছাড়া রুটি পছন্দ। স্বাস্থ্যকর এই খাদ্যটি আপনি চাইলেই স্বল্প সময়ের নোটিশে বানিয়ে ফেলতে পারেন কোন রকম ঝামেলা ছাড়া। তবে এজন্য আপনাকে সারা মাসের রুটির বানানোর জন্য একদিন সময়তো ব্যয় করতে হবে। এরপর তা ফ্রিজে সংরক্ষণ করে যখন-তখন খেতে পারেন।

চুলায় বড় একটি হাঁড়ি বসান। হাঁড়িতে ৬ কাপ পানি, ২ চা চামচ লবণ, ৬ টেবিল চামচ তেল দিয়ে ঢেকে দিন। ফুটে উঠলে ১ কেজির প্যাকেট আটা দিয়ে দিন পুরোটা। লো মিডিয়াম আঁচে ৫ মিনিট ঢেকে রাখুন। এরপর চামচ দিয়ে নেড়ে নামিয়ে ঢেকে রাখুন ৫ থেকে ৭ মিনিটের জন্য। আটার মিশ্রণ কয়েক ভাগে ভাগ করে মথে নিন। অল্প অল্প করে লেচি কেটে রুটি বেলুন।

দুই উপায়ে রুটি সংরক্ষণ করতে পারেন। হালকা সেঁকে এরপর সংরক্ষণ করতে চাইলে চুলায় তাওয়া বসিয়ে গরম করে রুটির দুই দিক সামান্য সেঁকে নিন। একটি মুখবন্ধ বাটির নিচের অংশে কিচেন টিস্যু বিছিয়ে উপরে সেঁকে নেওয়া রুটি একটির উপর আরেকটি বসিয়ে দিন। শেষে উপরে আরেকটি টিস্যু দিয়ে ঢেকে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে ফ্রিজারে রেখে দিন। দুইদিন পর বাটি বের করে একটি একটি করে রুটি আলাদা করে নিন। আবার রাখার আগে পাতলা প্লাস্টিক বসিয়ে দিন প্রতিদিন মাঝে। খাইয়ার আগে ডিপ ফ্রিজ থেকে বের করে ৫ মিনিট অপেক্ষা করে তারপর সেঁকে নেবেন।

না সেঁকেও সংরক্ষণ করতে পারেন রুটি। এক্ষেত্রে প্রতিটি রুটির আগে ও পরে একটি করে পাতলা পলিথিন দিয়ে মুখবন্ধ বাটিতে সংরক্ষণ করুন। না সেঁকে রাখতে চাইলে একটু মোটা করে বেলতে হবে। এই রুটি ডিপ ফ্রিজ থেকে বের করে সঙ্গে সঙ্গে সেঁকে নিতে হবে। নাহলে নরম হয়ে লেগে যাবে তাওয়ায়।