ভোর ৫:২৯, মঙ্গলবার, ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘বিশ্বমানের’ লিটন-শান্তদের দুই ম্যাচ দিয়ে মাপতে চান না পোথাস

আজকের সারাদেশ প্রতিবেদন:

আফগানিস্তানের স্পিন আক্রমণ বিশ্ব সেরা। তারা আমাদের যে চ্যালেঞ্জ দিয়েছে সেটা আমাদের জন্য ভাল। কারণ আমরা যদি এ ধরনের স্পিন আক্রামণ মোকাবিলা করতে পারি, তাহলে আমরা যে কাউকেই মোকাবিলা করতে পারব। এটা আমাদের প্রস্ততির জন্য সহায়ক হবে। তারা আমাদের চেয়ে র্যাঙ্কিংয়ে পিছিয়ে এটা সত্য। কিন্তু তাদের দুজন ওয়ার্ল্ড টপ ক্লাস দুই-তিন নম্বরে আছে।

আফগানিস্তান সিরিজ হারের পর সোমবার (১০ জুলাই) বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সহকারী কোচ নিক পোথাস এমন প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। মঙ্গলবার (১১ জুলাই) চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে লজ্জাজনক হোয়াইটওয়াশ এড়াতে সিরিজের শেষ ওয়ানডেতে লড়বে বাংলাদেশ। এর আগে সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি।

তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম দুই ওয়ানডে হেরে আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রথমবারের মতো সিরিজ হারের স্বাদ পেল বাংলাদেশ। প্রথম ওয়ানডেতে বৃষ্টি আইনে ১৭ রানে এবং দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ১৪২ রানের বড় ব্যবধানের জয় পেয়েছে আফগানরা। সামনেই এশিয়া কাপ ও বিশ্বকাপের মতো বড় টুর্নামেন্ট। এরকম সময়ে র‍্যাঙ্কিংয়ে পিছিয়ে থাকা দলটির বিপক্ষে এমন হারে বাংলাদেশ দলের জন্য বিপদসংকেতই বটে। তবে মাত্র দুটি হার দিয়ে বাংলাদেশ দলকে মাপতে চান না এই দক্ষিণ আফ্রিকান কোচ।

গত বেশ কিছুদিনের পারফরম্যান্স দিয়েই বাংলাদেশ দলকে মাপতে বললেন পোথাস, ‘আমাদের উচিত ওদেরকে লম্বা সময়ের ফল দেখে মাপা। এখানে সবাই দ্রুত ফলাফল চায়। কিন্তু ক্রিকেটে ফলটা লম্বা সময়ে আসে। তাই ক্রিকেটারদের লম্বা সময়ের ফল দেখেই মাপা উচিত। শেষ দুই ম্যাচে ওদের পারফরম্যান্সের কথা বলা হচ্ছে। এটাই মূল ব্যাপার। এটা ভুলে গেলে হবে না, আমরা বিশ্বমানের ক্রিকেটারদের দুই ম্যাচের ফল দিয়ে মাপছি। আমরা ভুলে যাচ্ছি, এর আগে ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওরা কেমন করেছে।’

তিনি বলেন, “চাপের সময় খেলার অভিজ্ঞতা অর্জন একটি সময় সাপেক্ষ ব্যাপার। আপনারা হয়তো চাইছেন এটি এখনই হোক। যদিও আমরা ২০০ ওডিআই খেলেছি তবুও আমাদের শেখার আছে অনেক কিছুই। এটা দ্রুতই হবে না। তবে যে রোমাঞ্চকর বিষয়টা আমাদের আছে তা হলো আমাদের কিছু ইয়াং হাই পারফরম্যান্স ব্যাটসম্যান আছে যারা বাংলাদেশকে আগামী ১০-১৫ বছর সার্ভিস দেবে।”

“স্পিন এটাকের বিরুদ্ধে আমাদের ব্যাটারদের পারফরম্যান্স শুধুই আমাদেরই সমস্যা না, সারা বিশ্বেরই সমস্যা। এ কারণেই বিশ্বের প্রতিযোগীরা স্পিনের জন্য টাকা খরচ করছে।”

দুই ওয়ানডেতেই আফগানিস্তানের স্পিনারদের বিপক্ষে খাবি খেয়েছেন বাংলাদেশের ব্যাটাররা। রশিদ খান, মুজিব উর রহমান ও মোহাম্মদ নবির বোলিংয়ের বিপক্ষে অসহায় আত্মসমর্পণ করেছেন শান্ত-সাকিবরা। এই নিয়ে বাংলাদেশ দলের সহকারী কোচের সহজ স্বীকারোক্তি, ‘আফগান স্পিন আক্রমণ পৃথিবীর সেরা। এটাই একটা ফ্যাক্ট। ওরা বিশ্বজুড়ে সবচেয়ে বেশি সাদা বলের ক্রিকেট খেলে। যেকোনো অধিনায়কের জন্য এমন একটা স্পিন আক্রমণ পাওয়া স্বপ্নের মতো। সে যাকেই বল করতে দিচ্ছে, সেই বোলারই ঠিকমতো কাজ করে দিচ্ছে। এটা অসাধারণ।’

আজকের সারাদেশ/৯জুলাই/একে

সর্বশেষ সংবাদ

সিলেটে বন্যার পানিতে ভেসে গেল লাখো মানুষের ঈদ আনন্দ

এবার সেন্টমার্টিনের অদূরে দেখা গেল নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ

ঈদের জামাতে আচমকা পড়ে গেলেন আ জ ম নাছির, ধরে তুললেন নওফেল

বিশ্বকাপে ‘ডট বলের বিশ্বরেকর্ড’ তানজিম সাকিবের

বিশ্বকাপের রেকর্ড ভেঙে সুপার এইট নিশ্চিত করল বাংলাদেশ

মিয়ানমার সীমান্তে যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলায় তৎপর থাকার নির্দেশ

২৪ মণ ওজনের ‘শান্ত’র দাম ৮ লাখ, কিনলেই ফ্রি ৩ মণের ‘অশান্ত’

ঈদের ছুটিতে মূল্যবান সম্পদ রেখে যেতে পারবেন থানায়: সিএমপি কমিশনার

চট্টগ্রামে সাড়ে ৩ লাখ কাঁচা চামড়া সংরক্ষণের প্রস্তুতি, মজুত রাখা হয়েছে ২১ হাজার টন লবণ

মাঝ নদীতে সন্তান প্রসব, মা-শিশুর আজীবন ভাড়া ফ্রি করল জাহাজ কর্তৃপক্ষ