সকাল ৬:৩০, সোমবার, ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আবারও পাকিস্তান ক্রিকেটে ফিরছেন মিসবাহ

আজকের সারাদেশ প্রতবেদন :

পাকিস্তান ক্রিকেটের সাবেক অধিনায়ক মিসবাহ-উল হক ক্রিকেট ছাড়ার পর দেশটির ক্রিকেট দলের কোচ এবং প্রধান নির্বাচক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন এক সময়। তবে, রমিজ রাজা পিসিবির চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পর মিসবাহ-উল হককে কোচের দায়িত্ব থেকে সরে যেতে হয়। লম্বা একটা সময় বিরতি দিয়ে আবারও পাকিস্তান ক্রিকেটে ফিরে আসছেন মিসবাহ।

এবার তিনি দায়িত্ব পালন করবেন পিসিবির নতুন ক্রিকেট কমিটির প্রধান হিসেবে। ইএসপিএন ক্রিকইনফো জানিয়েছে, পিসিবি খুব দ্রুতই নতুন করে ক্রিকেট কমিটি গঠন করতে যাচ্ছে। যার প্রধান হবেন মিসবাহ-উল হক। তিনি এখন আপাতত দায়িত্ব পালন করছেন পিসিবির বর্তমান চেয়ারম্যান জাকা আশরাফের ক্রিকেটীয় বিষয়াদির উপদেষ্টা হিসেবে।

প্রায় দুই বছর আগে প্রধান কোচের পদ থেকে পদত্যাগ করেছিলেন মিসবাহ। একসঙ্গে মিসবাহ এবং ওয়াকার ইউনুস কোচিং থেকে পদত্যাগ করেন। তাদের পরিবর্তে অন্তর্বর্তীকালীন হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয় সাকলায়েন মোস্তাক এবং আবদুল রাজ্জাককে।

জুলাইয়ের শুরুতে নতুন কমিটি এবং চেয়ারম্যান নিয়োগের পর এই প্রথম বড় কোনো পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। টানা আইনি লড়াই শেষে জুনের শুরুতেই নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে জাকা আশরাফ এবং তার কমিটি নিয়োগ পায় পিসিবিতে। সে সঙ্গে নাজম শেঠির অন্তর্বর্তীকালীন সময়কালেরও সমাপ্তি ঘটে।

মিসবাহর নিয়োগ পুরোটাই অবৈতনিক। তার পোস্টটি একটি সম্মানজনক পোস্ট। ক্রিকেট কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে তিনি কোনো পারিশ্রমিক পাবেন না। সোমবার জাকা আশরাফের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন তিনি। সেখানেই এসব নির্ধারণ করা হয়।

২০২১ সালের সেপ্টেম্বরে পাকিস্তান ক্রিকেটের প্রধান কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ান মিসবাহ। এরপর থেকে তিনি বেশ কিছু টিভি চ্যানেলে ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ হিসেবে ধারাভাষ্য দিয়েছেন। ২০১৯ সালে মিকি আর্থারের পরিবর্তে প্রধান কোচ এবং প্রধান নির্বাচক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন মিসবাহ।


মিকি আর্থার কোচ থাকাকালে মিসবাহ ছিলেন পাকিস্তান দলের অধিনায়ক এবং ওই সময় পাকিস্তান ছিল টেস্ট র্যাংকিংয়ের এক নম্বরে। ক্রিকেট ছাড়ার পর মিকি আর্থারকে বিদায় করে দেয়ার জন্য যে কমিটি কাজ করেছিলো, সেই কমিটির অংশ ছিলেন তিনি। এরপরপরই তিনি পাকিস্তান দলের প্রধান কোচ এবং একই সঙ্গে প্রধান নির্বাচকেরও দায়িত্ব পালন করেন।

আবার মিকি আর্থারকে যখন চলতি বছরের শুরুর দিকে পাকিস্তান ক্রিকেটে ফিরিয়ে আনা হয়েছে একজন উপদেষ্টা হিসেবে এবং তিনিই পাকিস্তানের কোচিং দলকে পরিচালনা করবেন বলে নির্দিষ্ট হলো, তখন মিসবাহ মন্তব্য করেছিলেন, ‘এ সিদ্ধান্ত হলো পাকিস্তান ক্রিকেটে একটি চপেটাঘাতের মত।’

এখন ক্রিকেট কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে মিসবাহ কিভাবে কাজ করবেন মিকি আর্থারের সঙ্গে সেটাই দেখার বিষয়।

আজকের সারাদেশ / ২৫ জুলাই / এনদি