রাত ১২:১০, মঙ্গলবার, ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পর্যাপ্ত ইলিশ না পাওয়ায় হতাশ জেলেরা, নিষেধাজ্ঞার সময় পেছানোর দাবি

আজকের সারাদেশ প্রতিবেদন:

ভরা মৌসুমেও উপকূলীয় জেলেদের জালে ধরা পড়ছে না ইলিশ। প্রতিবছর এ সময়টাতে পূর্ণিমা ও আমবস্যার জো’কে ঘিরে উৎসবে মেতে ওঠে জেলে পল্লীগুলো। গত ২৩ জুলাই নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার পর দেড়মাসের বেশি সময় অতিবাহিত হলেও এখন কাঙ্খিত ইলিশের দেখা মিলছে না। ইলিশের আশায় প্রতিদিন ক্রেতারা ভিড় করছেন উপকূলীয় মৎস্য ঘাটগুলোতে। কিন্তু ইলিশের অপ্রতুলতা ও অত্যাধিক দামের কারণে হতাশ হয়ে ফিরতে হচ্ছে তাদের। অন্যদিকে কাঙ্খিত মাছ না পাওয়ায় হতাশ জেলেরা।

মৎস্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, আগামী জো’গুলোতে ভাল ইলিশ আটকা পড়বে। জেলেরা এখনও আশাবাদী। কিন্তু তাদের সামনে এখন নিষেধাজ্ঞার ভয়। আগামী মাসে আসবে মা ইলিশ রক্ষায় আবারও ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা। তার আগে কাক্সিক্ষত ইলিশ ধরা নিয়ে তারা সন্দিহান। আর এজন্য নিষেধাজ্ঞা শুরুর সময় কিছুটা পিছিয়ে দেয়ার দাবি তাদের।

স্থানীয় জেলেরা বলছেন, সামনে পর্যাপ্ত ইলিশ ধরা পড়তে পারে। দু’একটি জো’তে ঠিকমত ইলিশ ধরতে পারলে ক্ষতি পুষিয়ে ওঠতে পারবেন। কিন্তু নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে শংকিত তারা। প্রতিবছর অক্টোবরের শুরুর দিকে দেয়া হয় ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা। জেলেদের দাবি এবার অক্টোবরের শেষ দিকে যেন শুরু হয় এই নিষেধাজ্ঞা। তাহলে কিছুটা সময় ইলিশ আহরণের সুযোগ পাবেন তারা।

চট্টগ্রাম জেলা মৎস্য কর্মকর্তা শ্রীবাস চন্দ্র চন্দ বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনজনিত কারণে বৃষ্টির তারতম্য দেখা দিয়েছে। দেরিতে বর্ষা শুরু হওয়ায় ইলিশের মৌসুমও পিছিয়ে গেছে। এরমধ্যে সে সব ইলিশ ধরা পড়ছে, সেগুলোর ডিম এখনও পরিপক্ক হয়নি। সাধারণত ডিম ছাড়ার সময় হলে ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ উপকূলের দিকে চলে আসে এবং জেলেদের জালে আটকা পড়ে। আশা করছি আগামী জো’গুলোতে জেলেদের জালে পর্যাপ্ত ইলিশ ধরা পড়বে।

আজকের সারাদেশ/১৫ সেপ্টেম্বর