সকাল ৬:০৯, সোমবার, ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লস্কর নেতা জঙ্গি উজাইর খান নিহত

আজকের সারাদেশ প্রতিবেদন:

ভারতের জম্মু-কাশ্মীরের অনন্তনাগে কথিত সন্ত্রসাবিরোধী অভিযানে লস্কর-ই তৈয়্যবার (এলইটি) কমান্ডার উজাইর খান নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (১৯ সেপ্টেম্বর) এমন তথ্যই জানিয়েছেন কাশ্মীর পুলিশের অতিরিক্ত ডিজি বিজয় কুমার।

তল্লাশি অভিযান এখনই বন্ধ হচ্ছে না বলেও ইন্ডিয়া টুডেকে জানিয়েছেন এই এডিজি।

তিনি বলেন, ‘লস্কর কমান্ডার উজাইর নিহত হয়েছেন। তার মৃতদেহ এবং বেশ কিছু অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। তবে তল্লাশি এখনই বন্ধ করা হচ্ছে না। জঙ্গিরা সংখ্যায় ২-৩ জন ছিল মনে করা হচ্ছে। ফলে সব জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে কি না বা কোনও জঙ্গি ওই জঙ্গলে এখনও লুকিয়ে আছে কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

এডিজি আরও বলেন, ‘এখনও পর্যন্ত এক জঙ্গির দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আরও একজনের দেহ দেখা গেছে। হয়তো আরও জঙ্গির দেহ মিলবে জঙ্গলে। বেশ কিছু গোপন ডেরার হদিস মিলেছে ওই পাহাড়ে। সেগুলো ধ্বংস করার কাজ চলছে।’

এই তল্লাশি অভিযানের সময় ওই জঙ্গলের কাছাকাছি বাসিন্দাদের না যাওয়ার পরামর্শও দেওয়া হয়েছে পুলিশের পক্ষ থেকে।

সেনাবাহিনী সূত্রে জানা গেছে, লস্কর কমান্ডার উজাইর আহমেদ খান অনন্তনাগের নাগাম কোকেরনাগের বাসিন্দা। ২০২২ সালের ৬ জুলাই থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন।

গোয়েন্দারা নিশ্চিত ছিলেন যে, উজাইর জঙ্গি দলে নাম লিখিয়েছেন। প্রাথমিকভাবে সেনাবাহিনীর ধারণা, উজাইর যেহেতু স্থানীয়, তাই কোকেরনাগের আনাচকানাচ ছিল তার নখদর্পণে। পাহাড়ি জঙ্গলও ছিল হাতের তালুর মতো চেনা। এটাও মনে করা হচ্ছে, এই সংঘর্ষের নেতৃত্বে ছিল উজাইর।

গত বুধবার শুরু হয়েছিল অনন্তনাগের সংঘর্ষ। সেই সংঘর্ষ টানা ছয়দিন ধরে চলে। সোমবার সেনাবাহিনীর হামলায় মৃত্যু হয় লস্কর কমান্ডার উজাইরের।

কিন্তু, তারপরেও এই অভিযানের সমাপ্তি ঘোষণা করেনি সেনা। তারা সপ্তম দিনেও তল্লাশি অভিযান চালায় কোকেরনাগের জঙ্গলে। ওই সময় এক সেনার দেহ উদ্ধার করা হয়।

আজকের সারাদেশ/১৯সেপ্টেম্বর/এএইচ