রাত ১২:২৭, শনিবার, ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভুয়া পিডিএফ ফাইল বানিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থীকে বানানো হলো এনপিপির প্রার্থী!

আজকের সারাদেশ প্রতিবেদন:
চট্টগ্রাম-৮ (বোয়ালখালী-চান্দগাঁও) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়েছিলেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় উপ কমিটির সদস্য আরশেদুল আলম বাচ্চু। দলীয় মনোনয়ন না পাওয়ায় তিনি মনোনয়নপত্র জমা দেন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবেই। কিন্তু একটি পক্ষ মনোনয়পত্র জমা নেওয়ার তালিকার একটি ভুয়া পোর্টেবল ডকুমেন্ট ফরম্যাটের (পিডিএফ) ফাইল ছড়িয়ে দেয়। তাতে বাচ্চুর নামের পাশে ‘স্বতন্ত্র’ মুছে জুড়িয়ে দেওয়া হয় ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) প্রার্থী।

ওই পক্ষটি ভুয়া ফাইলটি বিভিন্ন গণমাধ্যমেও পাঠায়। সেটি অনুসরণ করে কিছু কিছু পত্রিকা বাচ্চুকে এনপিপির প্রার্থী হিসেবে খবরও প্রকাশ করে। এমন অপপ্রচারের বিষয়টি জানার পর বিস্মিত হয়ে পড়েন আরশেদুল আলম বাচ্চু।

আরশেদুল আলম বাচ্চু ও তাঁর অনুসারীদের অভিযোগ, চট্টগ্রাম-৮ আসনে বাচ্চুর প্রতি মানুষদের ব্যাপক আগ্রহ তৈরি হয়েছে। তাই বাচ্চুর জনপ্রিয়তায় প্রতিহিংসাপরায়ণ হয়ে প্রতিপক্ষ এই অপপ্রচার শুরু করেছে।

আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে যুক্ত হওয়ার আগে বাচ্চু চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের দফতর সম্পাদক ছিলেন।পাশাপাশি নগর ছাত্রলীগের আতুঁড়ঘর হিসেবে পরিচিত ওমরগনি এমইএস কলেজ ছাত্রসংসদের সাবেক সাধারণ সম্পাদকও ছিলেন তিনি। সে কারণে ছাত্রলীগ-যুবলীগের মধ্যে জনপ্রিয়তা আছে বাচ্চুর। পাশাপাশি সামাজিক ও মানবিক কাজের জন্য চট্টগ্রাম-৮ আসনে তার একটা ভালো পরিচিতি আছে। সেজন্য তিনি এবার ওই আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়েছিলেন বাচ্চু। তবে ওই আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য নোমান আল মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়।

৩০ নভেম্বর চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন আরশেদুল আলম বাচ্চু। মনোনয়ন জমা দেওয়াদের তালিকার নথি পর্যালোচনা করে দেখা গেছে বাচ্চুকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবেই অন্তভূক্ত করা হয়েছে।

ভুয়া পিডিএফ ফাইল ছড়িয়ে এনপিপি প্রার্থী বানানোর চেষ্টাকে গভীর ষড়যন্ত্র হিসেবে উল্লেখ করেন আরশেদুল আলম বাচ্চু। তিনি বলেন, স্পষ্টই বোঝা যাচ্ছে এখানে স্বতন্ত্র এর জায়গায় এনপিপি শব্দটা ষড়যন্ত্রমূলকভাবে জুড়ে দেওয়া হয়েছে। মূলত আমার সম্মানহানির জন্য ষড়যন্ত্র করে ভুয়া পিডিএফ বানিয়ে ছড়িয়েছে।

চট্টগ্রাম-৮ (বোয়ালখালী-চান্দগাঁও) আসন থেকে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন মোট ১৩ জন। আরশেদুল আলম বাচ্চু ছাড়া বাকিরা হলেন—নোমান আল মাহমুদ (আওয়ামী লীগ), আবদুচ ছালাম (স্বতন্ত্র), বিজয় কুমার চৌধুরী (স্বতন্ত্র), এসএম আবুল কালাম আজাদ (বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট–বিএনএফ), সন্তোষ শর্মা (তৃণমূল বিএনপি), মোহাম্মদ ইলিয়াস (কল্যাণ পার্টি), সৈয়দ ফরিদ উদ্দিন (ইসলামিক ফ্রন্ট), কামাল পাশা (ন্যাশনাল পিপলস পার্টি – এনপিপি), সোলায়মান আলম শেঠ (জাতীয় পার্টি), আবদুন নবী (ইসলামী ফ্রন্ট), মহিবুর রহমান বুলবুল (স্বতন্ত্র) এবং মনজুর হোসেন বাদল (বাংলাদেশ কংগ্রেস)।

আজকের সারাদেশ/০২ডিসেম্বর/এএইচ

সর্বশেষ সংবাদ

জাহাজে করে এক মাসের খাদ্যপণ্য যাচ্ছে সেন্টমার্টিনে

সুপার এইটে আফগানিস্তান, নিউজিল্যান্ডের বিদায়

চবিতে ঘুরতে এসে ছিনতাইকারীর রামদার আঘাতে মিলিটারি একাডেমি শিক্ষার্থী আহত

ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রামে ৪৫ দিন পর কবর থেকে তোলা হল লাশ

নেদারল্যান্ডসকে হারিয়ে সুপার এইটের দৌড়ে এগিয়ে  বাংলাদেশ

তবে কি আনার হত্যার নির্দেশদাতা ঝিনাইদহ আ.লীগ সম্পাদক মিন্টু!

বকেয়া বেতন ও ঈদ বোনাসের দাবিতে চট্টগ্রামে পোশাক শ্রমিকদের বিক্ষোভ

বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার মধ্যে ফেরি চলাচল শুরু হতে যাচ্ছে

নৌযান চলাচল বন্ধ, সেন্ট মার্টিনে খাদ্যসংকট চরমে

১০ ক্যাটাগরিতে বাংলাদেশীদের ভিসা নিষেধাজ্ঞা তুলে নি‌য়েছে ওমান