সন্ধ্যা ৬:১৩, সোমবার, ১০ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সন্ধীপে প্রার্থী ও প্রিজাইডিং অফিসারের সঙ্গে রিটার্নিং কর্মকর্তার মতবিনিময়

আজকের সারাদেশ প্রতিবেদন:
দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে সংসদীয় ২৮০ নম্বর ও চট্টগ্রাম-৩ (সন্ধীপ) আসন থেকে প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থী, প্রিজাইডিং ও সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তাদের সাথে নির্বাচনী আচরণ বিধিমালা প্রতিপালন সম্পর্কে মতবিনিময় করেছেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং কর্মকর্তা আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামান।

সোমবার (১৯ ডিসেম্বর) সকাল ১১টায় উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্সের বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব কনফারেন্স হলে এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

সন্ধীপ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. খোরশেদ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা পুলিশ সুপার এস.এম শফিউল্লাহ, আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ইউনুচ আলী ও সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ এনামুল হক। এসময় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মো. মামুনুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. আব্দুল মালেক ও জেলা পর্যায়ের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

বেলা ১২টায় কবি আব্দুল হাকিম পাবলিক অডিটরিয়ামে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণকারী কর্মকর্তাদের (প্রিজাইডিং অফিসার ও সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার) সাথে মতবিনিময় ও প্রশিক্ষণ কর্মশালার শুভ উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক। দুপুর ১টায় উপজেলার ৮ জন বীর মুক্তিযোদ্ধাকে ডিজিটাল সনদ প্রদান, অসহায়-শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল ও শুকনো খাবার বিতরণ এবং মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের কিশোর-কিশোরী ক্লাবে বই বিতরণসহ প্রান্তিক কৃষকের মাঝে কৃষি বীজ বিতরণ করেন তিনি।

মতবিনিময় সভায় জেলা প্রশাসক ও দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা আবুল বাশার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামান বলেন, গতকালকে (১৮ ডিসেম্বর) প্রতীক বরাদ্দ চুড়ান্ত হয়েছে। আজ (১৯ ডিসেম্বর) থেকে প্রচার-প্রচারণা শুরু হয়। এসময় অনেক প্রার্থীর নির্বাচনী আচরণ বিধিমালা ভঙ্গনের অনেক অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি লক্ষ্য করা যায়। সে লক্ষ্যে জেলা রিটার্নিং অফিসার, পুলিশ সুপার, আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তাসহ অন্যান্য আরও কর্মকর্তা সন্ধীপ উপজেলার ৮জন প্রার্থীসহ প্রস্তাব ও সমর্থনকারী সকলের সাথে আচরণ বিধিমালা নিয়ে মতবিনিময় করা হয়। এতে সকল প্রার্থী ও তাঁর অনুসারী, সমর্থক, প্রচার-প্রচারণাকারীকে নির্বাচনী আচরণ বিধিমালা অনুসরণ করার জন্য অনুরোধ করা হয়।

তিনি আরও বলেন, আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন শতভাগ সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ, শান্তিপূর্ণ আনন্দঘন পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠানের আশ্বাস ব্যত্যয় করেন। নির্বাচনী আচরণ বিধিমালা ভঙ্গকারীকে কোনরূপ ছাড় দেওয়া হবেনা। সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের বিষয়ে ৮জন প্রার্থী মতামত গ্রহণ করা হয়েছে এবং মতামত অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন তিনি। ভোট গ্রহণকারী কর্মকর্তা অর্থাৎ প্রিজাইডিং অফিসার ও সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারদের সাথেও মতবিনিময় করেন জেলা প্রশাসক। দায়িত্বপ্রাপ্ত সকল কর্মকর্তাকে আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থেকে শতভাগ স্বচ্ছতা ও ন্যায়ের সাথে পবিত্র দায়িত্ব পালনের জন্য আহবান করেন তিনি।

সভায় চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার এস.এম শফিউল্লাহ বলেন, যদি কোন কর্মকর্তার কোন ধরণের অনিয়ম পরিলক্ষিত হলে আইন ও বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন শতভাগ সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ করতে সকলকে দায়িত্বশীলতার সাথে কর্তব্য পালনের আহবান জানান তিনি।

আজকের সারাদেশ/১৯ডিসেম্বর/এএইচ

সর্বশেষ সংবাদ