রাত ১১:৫১, বুধবার, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নির্বাচনে কোনো বিতর্ক তৈরি করতে চাই না: ইসি রাশেদা

আজকের সারাদেশ প্রতিবেদন:

নির্বাচন কমিশন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে কোনো বিতর্ক তৈরি করতে চায়না বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার (ইসি) রাশেদা সুলতানা। তিনি বলেছেন, ‘ভোট এখন যেটা হচ্ছে সেটা উৎসবমুখর ও সুন্দর হবে, এটা আমি বলতে পারি। ১৯৯৬ সালে একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচন না হওয়ার কারণে সেই নির্বাচন নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছিল। তাই আমরা এবার নির্বাচনে কোনো বিতর্ক তৈরি করতে চাই না।

নির্বাচন ভবনে বুধবার দুপুরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে ইসি রাশেদা বলেন, ‘আমি মনে করি নির্বাচনের মাঠ আমাদের নিয়ন্ত্রণে আছে। কোনো অনিয়ম পেলে আপনারা (সাংবাদিক) ছবি তোলেন, প্রমাণ দেন। আমরা সাথে সাথে অ্যাকশন নেব।

‘যেখানে অনিয়ম, সেখানেই আমাদের অ্যাকশন। ইতোমধ্যে বিভিন্ন কারণে প্রার্থিতা বাতিলের মতো ঘটনাও ঘটেছে। আপনারা দেখেছেন এর আগে আমরা গাইবান্ধায় ভোটও বন্ধ করেছি।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের যত আয়োজন সব নির্বাচন ঘিরে। তাই নির্বাচনের পরিবেশকে সুন্দর রাখতে আজ (বুধবার) থেকে সেনাবাহিনীকে নামানো হয়েছে। শুধু সেনাবাহিনী নয়, আমাদের যত বাহিনী আছে সবই এখন সুশৃঙ্খল ও উন্নত হয়েছে।’

তিনি বলেন,‘আমরা আমাদের জনগণ ও আন্তর্জাতিক বিশ্বের কাছে গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করতে চাই। আমাদের নৈতিক দায়িত্বটা ভালো নির্বাচন করা এবং পেপার-পত্রিকা দেখে আমার মনে হচ্ছে সরকারই চাচ্ছে একটা ফ্রি ফেয়ার ইলেকশন হোক।’

ভোটকেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি কেমন হবে- এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে আনার বিষয়টি আমরা গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছি। সে জন্য বিভিন্ন মাধ্যমে আমরা প্রচার করে যাচ্ছি। ভোটাররা ভোটকেন্দ্রের প্রাণ, ভোটাররা না থাকলে নির্বাচন নিষ্প্রাণ হয়ে যাবে। তবে আমরা বিভিন্ন জায়গা থেকে যেসব তথ্য পাচ্ছি তাতে আশাবাদী, ভোটকেন্দ্রে অনেক ভোটার আসবে।’

একটি বড় দল (বিএনপি) নির্বাচনে না আসা ও তাদের ভোট প্রতিহত করার ঘোষণাকে কীভাবে দেখছেন- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘দলগুলোর জন্য ভোটে আসা না আসা তাদের স্বাধীন ইচ্ছা। কিন্তু সে জন্য তার ভোট থেমে থাকবে না। আর ভোটকে কোনোভাবেই প্রতিহত করা যাবে না এবং কোনো নাশকতামূলক কাজ করা যাবে না। এগুলো কাজ যদি তারা করে, তাহলে আমরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছি, যথাযথ পদক্ষেপ নেবে, তবে সব দল নির্বাচনে আসলে একটা স্বস্তির বিষয় হতো। একটা উৎসবের বিষয় থাকত। এখন সেটা অতটা নেই, সেটা তো আর অস্বীকার করার কিছু নেই।’

আজকের সারাদেশ/০৩জানুয়ারী/এএইচ

সর্বশেষ সংবাদ

প্রথমবারের মতো আন্ডারপাস নির্মাণের উদ্যোগ নিল চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন

কোরবানির বাজার: খাতুনগঞ্জে দেশি পেঁয়াজের রাজত্ব

চট্টগ্রামে বুদ্ধ পূর্ণিমায় মানুষের মুক্তি কামনায় প্রার্থনা

চট্টগ্রাম বোর্ড: সচিবকে আটকাতে কর্মচারীদের ব্যবহার চেয়ারম্যানের!

ফেসবুক খুঁজে দিল ৩০ বছর আগে হারিয়ে ফেলা তিন বান্ধবীকে

ভারতে চিকিৎসা নিতে গিয়ে খুন হলেন বাংলাদেশের এমপি আনোয়ারুল আজিম

‘জীবন বাজি রেখে রাজপথে যথেষ্ট ছিলেন ছাত্রলীগ নেতা হাসানুল করিম মানিক’

তিনটি ফুটবল মাঠের সমান বিশ্বের সবচেয়ে বড় সাবমেরিনের মালিক রাশিয়া

এভারকেয়ার হসপিটাল শিশু হৃদরোগ বিভাগের আয়োজনে ফ্রি হেলথ ক্যাম্প

২ লিটারের বেশি পানি না নিতে নোটিশ দিল চবির শেখ হাসিনা হলের প্রভোস্ট