রাত ৮:১৪, মঙ্গলবার, ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভোট নয়, মাঠের লড়াইয়ে বিশ-ত্রিশটা মার্ডার চান নদভী

আজকের সারাদেশ প্রতিবেদন:

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নানা বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে আলোচনায় আসা সাতকানিয়া- লোহাগাড়া আসনের সাংসদ আবু রেজা নেজামুদ্দিন নদভী এবার ভোটের লড়াই বাদ দিয়ে সরাসরি মাঠের মারামারিতে নামতে চান। হুমকী দেন, এই মারামারিতে খুন হবেন বিশ থেকে ত্রিশ জন। আইনশৃঙ্খলাবাহীনিকে দেওয়া এমন একটি হুমকির ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে।

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া ওই ভিডিওতে স্থানীয় প্রশাসনের পদস্থ কর্মকর্তাদের নদভীকে হুমকী দিতে দেখা যায়। নানা তদবিরে এবারও নৌকা প্রতীক ভাগিয়ে নিতে পারলে স্থানীয় আওয়ামী লীগের হাতে গোনা কয়েকজন নেতা ছাড়া বাকিরা স্বতন্ত্র প্রার্থী ও সাতকানিয় উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মোতালেবের ঈগল প্রতীকের জন্য কাজ করছেন।

ওই ভিডিওতে সাংসদ নদভীকে বলতে শোনা যায়— এখন কথা হল যে আপনারা সাত্তার সাহেব, শিবলী নোমান, ইউনুস সাহেব আপনারা আমাকে দুইটার মধ্যে একটা কথা বলেন। কালকে থেকে আমরাও মাঠে নেমে যাবো? মারামারিতে। মাঠে নেমে যাব কিনা? আমাদের সাথে পারবে না, কিন্তু ২০ থেকে ৩০ টা মার্ডার হয়ে যাবে। করব না আপনারা ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। আপনারা আসতেছেন সামরিক সচিব বলার পরে। সামরিক সচিবের টেলিফোন বুঝেন তো? আমাকে বিভাগীয় কমিশনার সাহেব, ডিসি সাহেব বলেছেন, ডিআইজি মিনা সাহেব বলেছেন, সামরিক সচিব কড়া অর্ডার দিয়েছেন।

এখন আপনারা কি করবেন না করবেন? এই যে এখন তালিকা দিয়েছি, এই তালিকা পুরো গ্রেপ্তার না করলে তাহলে কালকে আমি…

এতটুকুতেই শেষ হয়ে যায় ৫৭ সেকেন্ডের সেই ভিডিও।

এবিষয়ে কথা বলতে সাংসদ আবু রেজা মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন নদভীর মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন করেও সাড়া পাওয়া যায়নি।

প্রসঙ্গত, সাংসদ নদভীর গানম্যান মামুনের বিরুদ্ধে বৈধ অস্ত্রের প্রভাব দেখানোর অভিযোগ উঠলে মামুনকে প্রত্যাহার করা হয়। নির্বাচনের প্রচারণা শুরু হওয়ার পর থেকে বিভিন্ন সময় সংঘর্ষে স্ত্রীসহ নিজের লোকজন আহত হওয়ার দাবী করে সংবাদ সম্মেলনও করেছিলেন নদভী।

অপর দিকে ঈগল প্রতীকের ক্যাম্প জ্বালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ তোলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল মোতালেব।

গত ১৩ ডিসেম্বর স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল মোতালেব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করে দোয়া আনার পর থেকেই বদলে যেতে থাকে সাতকানিয়া-লোহাগাড়ার চিত্র। একে একে সাতকানিয়া-লোহাগাড়ার আওয়ামী লীগের নেতারা ঈগলের জন্য কাজ শুরু করেন। পৌরমেয়র জোবায়েরসহ অনেকেই আগ থেকে মোতালেবের পক্ষে কাজ করছিলেন।

ভোটের ঠিক একদিন আগে নদভীর এমন ভিডিও সম্পর্কে অভিমত জানতে চাইলে নিরব রয়েছেন স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা।

আজকের সারাদেশ/০৬জানুয়ারী/এএইচ

সর্বশেষ সংবাদ

তিনটি ফুটবল মাঠের সমান বিশ্বের সবচেয়ে বড় সাবমেরিনের মালিক রাশিয়া

এভারকেয়ার হসপিটাল শিশু হৃদরোগ বিভাগের আয়োজনে ফ্রি হেলথ ক্যাম্প

২ লিটারের বেশি পানি না নিতে নোটিশ দিল চবির শেখ হাসিনা হলের প্রভোস্ট

উপজেলা নির্বাচন: হাটহাজারিতে ২ পক্ষের সংঘর্ষ

২৬ মে আঘাত হানতে পারে ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’, ব্যাপক বৃষ্টিপাতের শঙ্কা

ইসরায়েলের যুদ্ধ সরঞ্জাম বহনকারী জাহাজ বন্দরে ভিড়তে দেয়নি স্পেন

রাইসিকে ‘তেহরানের জল্লাদ’ বললেন ইহুদি নেতা, উচ্ছ্বাসের ঝড়

শাহ আমানত বিমানবন্দরে তথ্য কর্ণার চালু

শততম জাহাজে উড়তে যাচ্ছে লাল-সবুজের পতাকা

রাইসিসহ বিধ্বস্ত হেলিকপ্টারটি যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি