ভোর ৫:৩৭, সোমবার, ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিএনপির ইফতারে জামায়াতের আমির, সম্পর্ক কি ‘জোড়া’ লাগল!

আজকের সারাদেশ প্রতিবেদন:

বিএনপির উদ্যোগে রাজনীতিকদের সম্মানে আয়োজিত ইফতার মাহফিলে জামায়াতে ইসলামীর আমিরসহ দলটির চারজন নেতা অংশ নিয়েছেন। গত কয়েত বছর ধরে জোটের শরিক হলেও জামায়াতের সঙ্গে দূরত্ব বজায় রাখতে দেখা গেছে বিএনপিকে। এমনকি গত বছর ইফতারে জামায়াতকে আমন্ত্রণও দেওয়া হয়নি। তাই এবার বিএনপির ইফতারে জামায়াতের শীর্ষ নেতাদের উপস্থিতির পর নতুন সমীকরণ দেখছেন অনেকে। বলছেন, এর মধ্যে দিয়ে দুটি দলের মধ্যে সম্পর্ক পুনরায় জোড়া লাগার ইঙ্গিত মিলল।

জামায়াত অংশ নিলেও বিএনপির সঙ্গে যুগপৎ আন্দোলনের দুই শরিক দল বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি ও ভাসানী অনুসারী পরিষদের কেউ অংশ নেননি।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর লেডিস ক্লাবে অনুষ্ঠিত ইফতার মাহফিলে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন। অনুষ্ঠানে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সভাপতিত্ব করেন।

এই ইফতারে জামায়াতে ইসলামীর আমির শফিকুর রহমান ছাড়াও দলটির সেক্রেটারি জেনারেল মিয়া গোলাম পরওয়ার, নায়েবে আমির সৈয়দ আবদুল্লাহ মোহাম্মদ তাহের ও সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আবদুল হালিমসহ চারজন অংশ নেন। গত বছরের ইফতারে জামায়াতকে আমন্ত্রণ জানায়নি বিএনপি।

সভাপতির বক্তব্যে মির্জা ফখরুল ইসলাম এক দফার আন্দোলনে সব গণতান্ত্রিক শক্তিকে সমন্বিতভাবে লড়াই করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ‘আমরা একটা কঠিন সময় অতিক্রম করছি। ফ্যাসিবাদী শক্তি জাতির ওপর জগদ্দল পাথরের মতো চেপে বসে আছে। আমাদের সব আশা-আকাঙ্ক্ষাগুলো ব্যর্থ করে দিয়ে একদলীয় শাসনব্যবস্থা চাপিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চলছে। এ অবস্থায় সব গণতান্ত্রিক শক্তি সমন্বিতভাবে লড়াই করলে আমরা যে চূড়ান্ত আন্দোলনের জন্য কাজ করছি, সেই আন্দোলনে বিজয় অর্জিত হবে ইনশা আল্লাহ।’

আজকের সারাদেশ/জেএম