রাত ১২:১৪, মঙ্গলবার, ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারতে ‘বেস্ট মেমোরিয়াল এওয়ার্ড’ জিতলেন চবির তিন শিক্ষার্থী

আজকের সারাদেশ প্রতিবেদন:
ভারতের মানিপাল ‘ল’স্কুলের উদ্যোগ আয়োজিত ‘TMA PAI INTERNATIONAL MOOT COURT COMPETITION-2024’ এ ‘বেস্ট মেমোরিয়াল এওয়ার্ড’ জিতেছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) তিন শিক্ষার্থী।

টিম ইউনিভার্সিটি অফ চিটাগংয়ের তিন সদস্য হলেন ইতমিনান মনির বাসিলিস, মনিরুল ইসলাম হৃদয় ও ইসমিতা আজম। তিনজনই চবির আইন বিভাগের শিক্ষার্থী। ভারত, শ্রীলংকা, কেনিয়া, নেপাল ও বাংলাদেশসহ বিশ্বের ১৬টি টিমের মধ্য থেকে ‘বেস্ট মেমোরিয়াল এওয়ার্ড’ অর্জন করেন তারা।

গত ৩০ ও ৩১ মার্চ দুই দিনব্যাপী ব্যাঙ্গালোরের মানিপাল ‘ল’ স্কুলে এ আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতাটি অনুষ্ঠিত হয়।

প্রতিযোগিতাটি দুই ধাপে অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রথম ধাপে ক্লাইমেট মেমোরিয়ালের উপর রিটেন সাবমিট করে বিশ্বের বিভিন্ন প্রতিযোগী টিমের মধ্য থেকে চূড়ান্ত পর্বে জায়গায় করে নেয় টিম ইউনিভার্সিটি অফ চিটাগং। পরে ৩০-৩১ মার্চ অনুষ্ঠিত হওয়া চূড়ান্ত পর্বে বিশ্বের ১৫টি টিমের ৪৫ জন প্রতিযোগিকে হারিয়ে ‘বেস্ট মেমোরিয়াল এওয়ার্ড’ জিতে নেয় টিম ইউনিভার্সিটি অফ চিটাগং।

অনুভূতি ব্যক্ত করে ইতমিনান মনির বাসিলিস বলেন, আমাদের অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করা কঠিন। আন্তর্জাতিকভাবে চবির আইন বিভাগের খ্যাতি ও দেশের সম্মান অর্জনে ভূমিকা রাখতে পেরেছি ভেবে অনেক ভালো লাগছে। এটা আমাদের গৌরবের বিষয়।

তিনি বলেন, প্রতিযোগিতার বিচারকরা পরে আলাদা করে ডেকে আমাদেরকে বলেছিলেন, বাংলাদেশের চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় যেভাবে অগ্রসর হচ্ছে, তারা নাকি তা বিশ্বাসই করতে পারছেন না। কারণ আমাদের মেমোরিয়াল চেক করে তারা খুবই ইমপ্রেস ছিলেন।

ইতমিনান আরও বলেন, চবির আইন বিভাগের শিক্ষার্থী হিসেবে আমরাই প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিকভাবে বেস্ট মেমোরিয়াল এওয়ার্ড জিতেছি। আমরা গর্বিত। আমরা আশা করছি, ভবিষ্যতে এ ধারা অব্যাহত থাকবে। এটা মাত্র শুরু। এ লক্ষ্য অর্জনে আমরা কঠোর পরিশ্রম করে যাব। সর্বোপরী আমাদের ডিপার্টমেন্টের ডিন স্যারসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সবাইকে ধন্যবাদ জানাই, যাদের সমর্থনে আমরা এতদূর আসতে পেরেছি।

চবির আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. আব্দুল্লাহ আল ফারুক বলেন, আমরা তাদের কৃতিত্বের জন্য আনন্দিত এবং গর্বিত। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগ বাংলাদেশের আইন শিক্ষার অন্যতম কেন্দ্র। প্রতিবছর এখান থেকে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ছাত্র জুডিশিয়ারিতে যাচ্ছে, দেশ-বিদেশি বিভিন্ন মুট কোর্ট প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ হচ্ছে।

এ সময়ে আর একটা টিম ওয়াশিংটন ডিসিতে জেসাফে-২৪ প্রতিযোগিতায় রানার্সআপ হয়েছে। আমরা ডিপার্টমেন্ট এবং ফ্যাকাল্টি থেকে তাদেরকে সমর্থন করেছি। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের তহবিল থেকে যদি তাদেরকে ফান্ড দেওয়া হয়, তাহলে এই প্রতিযোগিতাগুলোতে তারা আরও ভালো করতে পারবে।

আজকের সারাদেশ/এমএইচ