রাত ১১:৫২, সোমবার, ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মসজিদে নববীতে ইতিকাফ করার সুযোগ পাচ্ছেন যারা

আজকের সারাদেশ প্রতিবেদন:
পবিত্র রমজান মাসের শেষ ১০দিন মুসলমানরা ইবাদত-বন্দেগিতে কাটাতে চান। আর সেই সুযোগ যদি হয় মসজিদে নববীতে,  তাহলে তো কথাই নেই। এবছর ৭০০ জন নারীসহ প্রায় ৪ হাজার ৭০০ মুসল্লিকে মসজিদে নববীতে ইতিকাফ করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

বছরের অন্যান্য সময়ের চেয়ে রমজানে মক্কা-মদিনায় মুসল্লিদের ভিড় বৃদ্ধি পায়। বিশেষ করে রমজানের শেষ ১০ দিন মুসল্লিদের ঢল নামে। এসময় সবাই আল্লাহর প্রার্থনায় কান্নায় ভেঙে পড়েন সবাই৷

জানা গেছে, বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশ এবং সৌদি আরবের বিভিন্ন এলাকা থেকে ১০ লাখেরও বেশি মুসল্লি রমজানের শেষ রাতগুলোতে ইবাদতে মশগুল থাকতে মক্কার গ্র্যান্ড মসজিদ এবং মদিনার মসজিদে নববীতে জড়ো হয়েছেন। এর মধ্যে মসজিদে নববীতে ইতিকাফ করছেন প্রায় ৪ হাজার ৭০০ মুসল্লি।

রমজানের ২০তম দিনে শুরু হওয়া পবিত্র এই মাসের সমাপ্তি পর্বে নাজাত লাভের আশায় বিপুল সংখ্যক  মুসল্লি ওমরাহ, তারারি এবং কিয়ামুল্লাইল নামাজে নিযুক্ত রয়েছেন।

দ্য জেনারেল অথরিটি ফর দ্য প্রফেট’স মস্ক অ্যাফেয়ার্স জানিয়েছে, চলতি বছর ৭০০ জন নারীসহ প্রায় ৪ হাজার ৭০০ মুসল্লিকে মসজিদে নববীতে ইতিকাফ করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

ইবাদতে মশগুল থাকা মুসল্লিদের জন্য নিরাপদ ব্যবস্থাপনা ও স্বাচ্ছন্দ্য নিশ্চিত করার জন্য দ্য জেনারেল অথরিটি ফর দ্য কেয়ার অব দ্য গ্রান্ড মস্ক অ্যান্ড দ্য প্রফেট’স মস্কের মাধ্যমে বিস্তৃত অপারেশনাল পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করছে সৌদি সরকার।

দ্য জেনারেল অথরিটি ফর দ্য প্রফেট’স মস্ক অ্যাফেয়ার্স ইতিকাফ পালনকারীদের জন্য ইফতার ও সেহেরির খাবারের পাশাপাশি মসজিদে প্রবেশের জন্য ব্রেসলেটসহ অন্যান্য পরিষেবা এবং মোবাইল ফোন চার্জার প্রদান করছে। পুরুষ ও নারী ইতিকাফ পালনকারীদের জন্য আলাদা জায়গাও বরাদ্দ করা হয়েছে।

এছাড়া ইতিকাফ এলাকা সুরক্ষিত করার এবং এই ইবাদত পালনকারীদের সেখানে প্রবেশের জন্য নির্ধারিত গেটগুলোতে পারমিট চেক করার জন্য একটি অনুমোদিত নিরাপত্তা বিভাগকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

শরীয়তের পরিভাষায় ইতিকাফ বলা হয়, আল্লাহর সন্তুষ্টির লক্ষ্যে জাগতিক কাজকর্ম ও পরিবার-পরিজন থেকে বিছিন্ন হয়ে রমজানের শেষ ১০ দিন বিশেষ নিয়মে আল্লাহর ইবাদতের নিয়তে নিজেকে আবদ্ধ রাখাকে ইতিকাফ বলে।

চলতি বছরের ১১ মার্চ সৌদি আরবে পবিত্র রমজান মাস শুরু হয়েছে এবং এই বছর পবিত্র এই মাসটি আগামী ৯ এপ্রিল শেষ হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

আজকের সারাদেশ/ইই/এমএইচ