রাত ১১:৫১, সোমবার, ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জার্মানিতে গাঁজা চাষ, ব্যবহারের পর প্রকাশ্যে সেবন বৈধ, বার্লিনে হাজারো মানুষের উদযাপন

আজকের সারাদেশ প্রতিবেদন:

গাঁজা চাষ ও ব্যবহোরে বৈধতা দেওয়া পর প্রকাশ্যে মাদকদ্রব্যটি সেবনের অনুমতি দিয়েছে জামার্ন সরকার। গত ১ এপ্রিল থেকে স্থানভেদে প্রকাশ্যে ধূমপানের আকারে গাঁজা সেবনের অনুমোদন দেয়া হয়। এর আগে গাঁজার বিনোদনমূলক ব্যবহার ও চাষ বৈধ করার জন্য গত ফেব্রুয়ারি মাসে জার্মানির মন্ত্রিসভায় বিলটি পাস হয়।

আর নতুন এ আইন পাশের খুশি উদযাপন করতেই হাজার হাজার গাঁজা প্রেমি জড়ো হয়েছেন জার্মানির রাস্তায়। বার্লিন পুলিশ জানিয়েছে, সম্প্রতি জার্মানিতে গাঁজার বৈধতা উদ্‌যাপনের জন্য শনিবার (২০ এপ্রিল) জার্মানির রাজধানীর ঐতিহাসিক ব্রান্ডেনবুর্গ গেটে প্রায় চার হাজার মানুষ জড়ো হয়েছিলেন। তাদের সবার হাতে ছিল ‘সবাই অ্যালকোহল পছন্দ করে না’ এমন প্ল্যাকার্ড, আর উন্মুক্ত রাস্তায় সবাই একসাথে আনন্দের সহিত সম্মিলিত ভাবে গাঁজা সেবন করছিলেন। অনুষ্ঠানে কনসার্ট ও গাঁজা বৈধ করার আন্দোলনকারীদের বক্তব্যও ছিল।

জার্মানিতে গাঁজা সেবন বৈধ হলেও জার্মানির জাতীয় রেলওয়ে সংস্থা ডয়চে বান (ডিবি) শনিবার ঘোষণা করেছে, দেশের বিভিন্ন রেল স্টেশনে হাশিশ ও গাঁজা সেবন নিষিদ্ধ করা হবে।

নতুন পাস হওয়া আইন অনুযায়ী, প্রাপ্তবয়স্করা ২৫ গ্রাম পর্যন্ত গাঁজা নিজেদের কাছে রাখতে পারবে এবং সর্বোচ্চ তিনটি গাছ লাগাতে পারবে। এছাড়া অলাভজনক ‘ক্যানাবিস ক্লাব’ বা গাঁজা ক্লাবের অংশ হিসেবে গাঁজা সংগ্রহ করতে পারবে। তবে স্কুল ও খেলার মাঠের মতো এলাকায় গাঁজা সেবন অবৈধ থাকবে।

জার্মানির রেলওয়ে প্লাটফর্মগুলোতে সাধারণত সিগারেট ও সিগার খাওয়ার নির্দিষ্ট জায়গা থাকে। তবে তারা বলেছে যে পথচারী অঞ্চল, স্কুল এবং খেলার মাঠের নিকটে দিনের বেলা গাঁজার ব্যবহার নিষিদ্ধ করায় তারা তাদের স্টেশনগুলোতেও গাঁজা সেবন নিষিদ্ধ করবে এবং সমস্ত যাত্রী, বিশেষত শিশু এবং তরুণদের সুরক্ষা নিশ্চিত করবে। আগামী এক মাসের মধ্যেই নতুন নিয়ম চালু হবে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

সূত্র: ডয়চে ভেলে

আজকের সারাদেশ/জেএম