সকাল ৬:১৬, সোমবার, ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামের মানুষকে স্বস্তি দিল এক পশলা বৃষ্টি

আজকের সারাদেশ প্রতিবেদন

সারা দেশে চলমান তাপপ্রবাহের মধ্যে এক পশলা বৃষ্টিতে খানিকটা স্বস্তি পেয়েছেন চট্টগ্রামের মানুষ।

বুধবার (১ মে) বিকেল থেকে আকাশে ছিল মেঘের ঘনঘটা। দিবাগত মধ্যরাত থেকে থেমে বৃষ্টি হচ্ছে নগরীর বিভিন্ন জায়গায়। রাত থেকেই শুরু হয় বাতাস, বিদ্যুৎ চমকানো আর বজ্রপাত। বৃহস্পতিবার ভোরের আলো ফুটতেই বাড়ে বৃষ্টি। স্থান ভেদে বুধবার রাত থেকে সকাল সাড়ে ৯টা পর্যন্ত বৃষ্টি হতে দেখা গেছে।

এতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে বয়ে যায় আনন্দের ঢেউ। উচ্ছ্বসিত হয়ে স্ট্যাটাস দেন নেটিজেনরা।

বৃহস্পতিবার (২ মে) সকাল থেকে কয়েক দফা বৃষ্টি পড়ে। সঙ্গে ছিল বজ্রপাতও। বৃষ্টির সময় পানি সংকটে থাকা গৃহস্থদের বৃষ্টির পানি ধরে রাখতে দেখা যায়। স্কুলগামী শিশুসহ অনেককে খুশিতে ভিজতে দেখা যায়।

পতেঙ্গা আবহাওয়া অফিসের কর্মকর্তা মো. আবদুল বারেক জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় মাত্র ১ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। তবে এরপর থেকে মোটামুটি বৃষ্টি হচ্ছে। প্রতি তিন ঘণ্টা পরপর আমরা বৃষ্টির পরিমাপ নিয়ে থাকি।

তিনি জানান, কালবৈশাখী ঝড়ের প্রভাবে আজ চট্টগ্রামে বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। শুক্রবারও বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। নদী বন্দরকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখানো হয়েছে।

সূত্র জানায়, বেলা পৌনে ২টার দিকে জোয়ার শুরু হবে। ভাটা শুরু হবে রাত আটটায়। জোয়ারের সময় ভারী বৃষ্টি হলে নগরের নিম্নাঞ্চলে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হতে পারে।
সারা দেশে চলমান তাপপ্রবাহের মধ্যে এক পশলা বৃষ্টিতে খানিকটা স্বস্তি পেয়েছেন চট্টগ্রামের মানুষ।