রাত ১২:৩২, বৃহস্পতিবার, ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এনএসআই পরিচয়ে চবি ছাত্রীর সঙ্গে প্রেম, লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

আজকের সারাদেশ প্রতিবেদন

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) শিক্ষার্থী ও এনএসআই সদস্য পরিচয় দিয়ে চবির এক ছাত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক অতঃপর ১লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ভুক্তভোগী ছাত্রী চবির পদার্থবিদ্যা বিভাগের ২০১৭-১৮ সেশনের শিক্ষার্থী। এ নিয়ে হাটহাজারী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন তিনি।

গত বৃহস্পতিবার (২ মে) অভিযুক্ত নাজিম উদ্দিন ওই শিক্ষার্থীকে বিশ্ববিদ্যালয়ের জিরো পয়েন্টে দেখা করতে বাধ্য ও হেনস্তা করলে ঘটনাস্থলে গিয়ে নাজিমকে আটক করে পুলিশ। অভিযুক্ত নাজিম উদ্দীন (৩০) চট্টগ্রাম নগরীর পাঁচলাইশ এলাকার আবুল বাহারের ছেলে।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, প্রায় সাত মাস পূর্বে ফেসবুকের মাধ্যমে বিবাদীর সঙ্গে আমার পরিচয় হয়। পরবর্তীতে আমাকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র এবং বর্তমানে এনএসআইতে চাকুরি করেন বলে পরিচয় দেন। এরপর থেকেই তার সঙ্গে আমার নিয়মিত কথা চলতে থাকে। কথা বলার এক পর্যায়ে আমাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়। পরবর্তীতে বিবাদী বিভিন্ন সমস্যার কথা বলে বিভিন্ন সময় আমার থেকে এক লাখ টাকা নেয়। সম্পর্ক থাকাকালীন সে আমাকে প্রায় সময়ই দেখা করার জন্য বাধ্য করতো।

আরও জানা যায়, বিবাদীর সঙ্গে আমার প্রেমের সম্পর্ক থাকার কারণে বিবাদী আমার ফেসবুক ও হোয়াটসঅ্যাপ তার নিয়ন্ত্রণে ব্যবহার করতো। বিবাদী বিভিন্ন সময় আমার শরীরের স্থিরচিত্র বা ভিডিও ধারণ করে তার কাছে পাঠানোর জন্য হুমকি দিতো। বিবাদীর এমন ব্যবহারে আমি অতিষ্ট হয়ে তার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেই।

এজহারে এতে উল্লেখ করেন, তারই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার রাত আনুমানিক দশটার সময় বিবাদী চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এসে আমাকে দেখা করার জন্য জোরাজুরি করলে আমি হল থেকে নেমে ঘটনাস্থলে আসি। ঘটনাস্থলে আসার পরে বিবাদী আমাকে টানা হেঁছড়া করে আমার বাম হাতে বাহুতে ও ঘাড়ের নিচে নখের আঁচড় দিয়ে সাধারণ জখম করে। তখন আমি বাঁচার জন্য আত্মচিৎকার করলে আমার আত্মচিৎকার শুনে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য ছাত্ররা এগিয়ে এসে বিবাদীকে আটক করে।

আটক করে তার পরিচয় সঠিকভাবে বলার জন্য বললে সে জানান, সে আমার কাছে মিথ্যা সরকারী কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে প্রতারণামূলকভাবে অর্থ গ্রহণ করে এবং প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। মূলত সে একটি প্রাইভেট কোম্পানীতে সেলসম্যান হিসেবে চাকরী করে। ওই বিষয়ে আমি আমার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরকে অবগত করি।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী জানান, প্রায় ছয় মাস আগে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী হিসেবে পরিচয় দিয়ে প্রেমে জড়ায় প্রতারক মো. নাজিম উদ্দিন। পরবর্তীতে এনএসআই’র সদস্য হিসেবেও পরিচয় দেয় এ যুবক। সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে মেয়েকে দিত বিভিন্ন রকম শর্ত। চুল কেটে ফেলা, রুমমেটদের সঙ্গে সম্পর্কছেদ করা, হাতসহ শরীরের বিভিন্ন অংশ কাটার-ও শর্ত দিত মেয়েটিকে। ভুক্তভোগী ছাত্রীর কথা অনুযায়ী লাখের বেশি টাকা নিয়েছে ছেলেটি। এটিই প্রথম নয় এর আগেও এরকম প্রতারণা করেছে ছেলেটি। যার প্রমাণ আমি পরবর্তীতে পেয়েছি। হাটহাজারী থানায় এ নিয়ে আমি মামলা করেছি।

ভুক্তভোগী ছাত্রীর বন্ধুরা প্রতারকের সর্বোচ্চো শাস্তি চেয়ে আবেদন জানান।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর অধ্যাপক ড. অহিদুল আলম বলেন, গত বৃহস্পতিবার এরকম একটি ঘটনা ঘটেছিলো। অভিযুক্তকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয় এবং এ ঘটনা ভুক্তভোগী হাটহাজারী থানায় মামলা করেছেন। এ বিষয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ কর্তৃপক্ষ নেবে।

মামলার বিষয়ে হাটহাজারী থানার অসি মনিরুজ্জামান বলেন, এরকম একটি ঘটনায় মামলা হয়েছে। তদন্ত কমিটি তাদের কাজ করছেন। অভিযুক্ত দোষী সাব্যস্ত হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আজকের সারাদেশ/এমএইচ

সর্বশেষ সংবাদ

প্রথমবারের মতো আন্ডারপাস নির্মাণের উদ্যোগ নিল চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন

কোরবানির বাজার: খাতুনগঞ্জে দেশি পেঁয়াজের রাজত্ব

চট্টগ্রামে বুদ্ধ পূর্ণিমায় মানুষের মুক্তি কামনায় প্রার্থনা

চট্টগ্রাম বোর্ড: সচিবকে আটকাতে কর্মচারীদের ব্যবহার চেয়ারম্যানের!

ফেসবুক খুঁজে দিল ৩০ বছর আগে হারিয়ে ফেলা তিন বান্ধবীকে

ভারতে চিকিৎসা নিতে গিয়ে খুন হলেন বাংলাদেশের এমপি আনোয়ারুল আজিম

‘জীবন বাজি রেখে রাজপথে যথেষ্ট ছিলেন ছাত্রলীগ নেতা হাসানুল করিম মানিক’

তিনটি ফুটবল মাঠের সমান বিশ্বের সবচেয়ে বড় সাবমেরিনের মালিক রাশিয়া

এভারকেয়ার হসপিটাল শিশু হৃদরোগ বিভাগের আয়োজনে ফ্রি হেলথ ক্যাম্প

২ লিটারের বেশি পানি না নিতে নোটিশ দিল চবির শেখ হাসিনা হলের প্রভোস্ট