রাত ৮:১৫, সোমবার, ১০ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাবিতে ছাত্রদল নেতাকে পিস্তল ঠেকিয়ে গুলি করার হুমকি, রুমে আটকে রেখে ছাত্রলীগের নির্যাতন

রাবি প্রতিনিধি:

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য নাফিউল ইসলাম ও তার সহপাঠী বন্ধু ইউনুস খানকে মারধোর ও পিস্তল ঠেকিয়ে হুমকির অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে। বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুল্লা হিল গালিব ও তার অনুসারিদের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী ছাত্রদল নেতা নাফিউল।

তিনি অভিযোগ করেন, ক্যাম্পাসে রাত নয়টার পর বন্ধু সহ ঘুরতে আসেন তিনি। এক পর্যায়ে তাপসি রাবেয়া হলের সামনে এলে তিনি বুঝতো পারেন ছাত্রলীগের তিন কর্মী তাঁদের অনুসরণ করছেন। একপর্যায়ে সেখান থেকে সরে যাওয়ার চেষ্টা করলেও ছাত্রলীগের কর্মীরা তাদের পথরোধ করেন ও জোড় করে মাদার বখশ হলের ২১৫ নাম্বার রুমে নিয়ে যান। রুমটি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গালিবের। সেখানে গালিবসহ সহসভাপতি মনু মোহন (বাপ্পা), যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক স্বদেশ শেখ, সাদিকুল ইসলাম (সাদিক), সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদ হাসান (সোহাগ) ও মাদার বখ্শ হলের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা মিশকাত হাসান তাঁদের প্রায় তিন ঘন্টা আটকে রেখে মারধর করেন। এসময় গালিব পিস্তল ঠেকিয়ে তাঁকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করেন।

নাফিউল ইসলাম বলেন, গালিব পিস্তলে বুলেট লোড আনলোড করতে থাকেন। এবং আমাকে ভয়ভীতি দেখান। এক পর্যায়ে আমার কোন পায়ে গুলি করবেন সেটি জিজ্ঞেস করেন। প্রায় তিনঘন্টা তাঁরা আমাকে মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন করেন।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক। গালিব বলেন, তারা ক্যাম্পাসে বিশৃঙ্খলা করতে পারে এমন সন্দেহেই তাদেরকে রুমে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করি। পরে তাঁদের প্রক্টরিয়াল বডির কাছে তুলে দিই। তাদের কোনো নির্যাতন করা হয় নাই।

প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক বলেন, আমরা ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীদের উদ্ধার করে এনেছি। কিন্তু তারা মারধর বা নির্যাতনের কোনো অভিযোগ করেন নি। অভিযোগ পেলেই আমরা ব্যবস্থা নিব।

আজকের সারাদেশ/এমএইচ

সর্বশেষ সংবাদ